‘ভবিষ্যতে ক্রিকেটারদের নিরাপত্তার বিষয়ে কোন ছাড় নয়’

image

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিয়ে সক্রিয় হয়েছে বিসিবি। ভবিষ্যতে নিরাপত্তার সব দিক বিবেচনা করেই দলকে বিদেশে যাওয়ার সবুজ সংকেত দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি।

১৮ মার্চ সোমবার শেরেবাংলা স্টেডিয়াম সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড আমাদের জানিয়েছিল, ক্রিকেটারদের জন্য সব ধরনের নিরাপত্তা থাকবে। কিন্তু একেক দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা একেক রকম। যেমন একটি দেশে কোন নিরাপত্তারক্ষী না দেখে আমি তাদের বলেছিলাম, ‘কই, তোমাদের দেশে তো কোন নিরাপত্তা বাহিনীই দেখছি না!’ তখন তারা আমাকে বলল, ‘তুমি যদি দেখতেই পাও, তাহলে নিরাপত্তারক্ষী রেখে লাভ কী!’ এতদিন তো ওদের কথাই বিশ্বাস করেছি। কিন্তু ভবিষ্যতে না বুঝে-শুনে দলকে বিদেশ সফরে পাঠাব না।’

বাংলাদেশ সফরে আসার আগে ইংল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়া কয়েক দফা তাদের নিরাপত্তা প্রতিনিধিদল পাঠায়। তাদের প্রতিবেদনের ওপরেই নির্ভর করে দ্বিপক্ষীয় সিরিজের ভাগ্য। বাংলাদেশও এমন করবে কিনা প্রশ্নে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘বাস্তবতা বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। পাকিস্তানে নারী ক্রিকেট দল খেলতে যাওয়ার আগে আমরা ওদের দেশে নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ পাঠিয়েছিলাম। পাকিস্তান আমাদের মতোই নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেখেছিল। আর আমাদের মতো নিরাপত্তা ব্যবস্থা পৃথিবীর কোথাও নেই। ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সময় নামমাত্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল। ওসব দেশে পুলিশ-বন্দুক-গাড়ি দেখাই যায় না। এটাই ওদের সিস্টেম।’ তবে ভবিষ্যতে জাতীয় দলের নিরাপত্তা নিয়ে বিন্দুমাত্র ছাড়া দিতে রাজি নয় বিসিবি। নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘এতদিন ক্রিকেট দল কোন সফরে গেলে সংশ্লিষ্ট দেশের ওপরে নিরাপত্তার ভার ছেড়ে দিতাম। তবে ভবিষ্যতে নিরাপত্তার বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ-খবর নিয়েই আমরা দল পাঠাব।’ ১৫ মার্চ শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের যে মসজিদে নৃশংসা ঘটনা ঘটেছে, ক্রিকেটাররা সেখানেই জুমার নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন। কয়েক মিনিট আগে তারা মসজিদে পৌঁছালে ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ট্র্যাজেডির জন্ম হতো। ভবিষ্যতে বিদেশ সফরের সময় নামাজ পড়তে কিংবা ব্যক্তিগত কাজে ক্রিকেটাররা হোটেলের বাইরে গেলে সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষী থাকবে কিনা এমন প্রশ্নে বোর্ড প্রধান বলেছেন, ‘বিদেশে সাধারণত খেলার মাঠে আর হোটেল থেকে মাঠে যাওয়া-আসার সময় নিরাপত্তা দেয়া হয়। এছাড়া বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকে না। তবে এখন থেকে কোন সিরিজ বা টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই আয়োজকদের সঙ্গে কথা বলে কিছু করা যায় কিনা সেটা আমরা দেখব।’

বাংলাদেশ দলের পরবর্তী সফর আয়ারল্যান্ডে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে ?টুর্নামেন্ট খেলতে ৩০ এপ্রিল দেশ ছাড়ার কথা ক্রিকেটারদের। এই সফরের আগে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাঠানোর ব্যাপারে এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন নাজমুল হাসান, ‘এ বিষয়ে আমরা এখনও চিন্তা-ভাবনা করিনি। এখন থেকে ক্রিকেট দল যেকোন দেশে যাওয়ার আগে তাদের নিরাপত্তা পরিকল্পনা চাইব। সেটা ঠিক মতো প্রয়োগ হচ্ছে কিনা তা দেখতে কাউকে পাঠানো হবে। তবে নিরাপত্তা বিভাগের লোকই যে পাঠানো হবে, তা নয়।’ ওয়েবসাইট।