মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

ইরান-মার্কিন বিরোধেও কি বাংলাদেশ জড়িত থাকবে

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওকে লেখা এক চিঠিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেছেন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজির সঙ্গে আছে ঢাকা। গত রোববার প্রকাশিত একটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশ অবাধ ও মুক্ত ইন্দো প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজিতে বিশ্বাস করে। বাংলাদেশ অন্তর্ভুক্তিমূলক শান্তিপূর্ণ এবং সংরক্ষিত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল চায়। যেখানে আন্তর্জাতিক নিয়ম-নীতি ও আদেশ মেনে এ অঞ্চলের সবার উন্নতির সুযোগ তৈরি হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেছেন, এর মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ তার অবস্থান পরিষ্কার করেছে।

গণমাধ্যমে চিঠির যে সরাংশ প্রকাশিত হয়েছে তাতে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি প্রশ্নে বাংলাদেশের অবস্থানে স্পষ্ট না হয়ে ঘোলাটে হয়েছে বলে আমরা মনে করি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিঠিতে অন্তর্ভুক্তিমূলক, শান্তিপূর্ণ এবং সুরক্ষিত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল কামনা করেছেন। এ অঞ্চলের শান্তি আর সুরক্ষার প্রশ্নটি আপাতত তোলা থাক। উক্ত স্ট্র্যাটেজি অন্তর্ভুক্তিমূলক হয়েছে কিনা সেটা আমরা জানতে চাই। চীন, ইরান, পাকিস্তানের মতো দেশগুলো এ কৌশলে যুক্ত হয়নি। কাজেই একে অন্তর্ভুক্তিমূলক বলা যায় না এবং এর মধ্যে দিয়ে এ অঞ্চলের সবার উন্নতির সুযোগও তৈরি হয়নি। এ অবস্থায় উক্ত স্ট্র্যাটেজির সঙ্গে থাকার ঘোষণা পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেন কী করে সেটা ভেবে আমরা বিস্মিত হই। তিনি কি বিষয়টি বুঝে চিঠি লিখেছেন।

চীনের ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোডের পাল্টা কৌশল হিসেবে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি প্রণয়ন করা হয়েছে বলে অনেকে মনে করেন। চীন আর উত্তর কোরিয়াকে লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘদিন ধরে এ অঞ্চলে আধিপত্য বাড়াতে চাচ্ছে। এ অঞ্চলকে ঘিরে তৎপর একাধিক শক্তির কোনটার পক্ষ বাংলাদেশ নেবে, নাকি নিরপেক্ষ থাকবেÑ সেটা একটা প্রশ্ন। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যেমন, চীনের সঙ্গেও তেমন বাংলাদেশের মিত্রতার ইতিহাস দীর্ঘ। এ অবস্থায় বাংলাদেশের কারও পক্ষ গ্রহণ করা সমীচীন নয় বলে আমরা মনে করি। ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোডের ক্ষেত্রে যেমন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজির ক্ষেত্রেও তেমন পক্ষপাতমুক্ত থাকতে হবে। কিন্তু মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে চিঠি দিয়েছেন তাতে বাংলাদেশের নিরপেক্ষতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ে। প্রশ্ন উঠতেই পারে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ চিঠি ইরান-মার্কিন বিরোধ বা যুদ্ধে বাংলাদেশ কি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষাবলম্বন করবে? এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ কোন বিশেষ শিবির যোগ দিল কিনা সে প্রশ্ন উঠতে পারে।

আমরা বলতে চাই, পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তার চিঠির বিষয়টি সুস্পষ্ট করতে হবে। ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি বা এরকম যে কোন বিষয় নিয়ে পার্লামেন্টে আলোচনা হতে হবে, জনগণের মধ্যে উন্মুক্ত আলোচনা হতে হবে। জনমত যাচাই না করে কেউ কোন আঞ্চলিক কৌশল বা জোটের সঙ্গে থাকার ঘোষণা দিতে পারেন না বলে আমরা মনে করি।

দৈনিক সংবাদ : ২৮ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট প্রশ্নবিদ্ধ পুলিশের ভূমিকা

সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীর অভিযোগ ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের পছন্দের প্রতীকে ভোট দেয়ায় তার ওপর নির্যাতন হয়েছে

বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত করতে হবে

চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভাগ মানসম্মত বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে না পারায়

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা।

স্বাভাবিক পুঁজিবাজার চাই অনৈতিক কারসাজি দমন করুন

দেশের পুঁজিবাজারে এখনও কারসাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক সুকৌশলে নিয়ন্ত্রণ করছে এমন