মাদ্রাসাছাত্রী হত্যাচেষ্টার মামলা

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

বিলু কবীর

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা। অভিযোগ উঠেছে, সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শুরু থেকেই মামলা ভিন্ন খাতে নেয়ার চেষ্টা করেছেন। মামলার এজাহারে পুলিশ ঘটনার বিবরণ লিপিবদ্ধ করার সময় ভিকটিমের জবানবন্দি বিকৃত করেছিল। সেখানে ঘটনাস্থল লেখা হয়েছিল ভুলভাবে। হাত-পা বেঁধে আগুন লাগানোর প্রসঙ্গ এজাহারে এড়িয়ে যাওয়া হয়েছিল। পরে ভিকটিমের পরিবারের দাবির মুখে এজাহার সংশোধন করা হয়। মামলার মূল অভিযুক্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এলাকায় যেন কোন মানববন্ধন করা না হয় সেজন্য ওসি মৌখিক নির্দেশ দিয়েছিলেন। উক্ত মাদ্রাসাছাত্রীকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে নাকি সে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে সেটা তদন্ত করে দেখতে চেয়েছিলেন থানার ওসি। হত্যাচেষ্টার কয়েকদিন আগে ভিকটিমের পরিবার শ্লীলতাহানির মামলা করলে উক্ত ওসি বলেছিলেন, মামলার অভিযোগ সাজানো। এ নিয়ে গতকাল গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

পুড়িয়ে ছাত্রী হত্যাচেষ্টার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে যে অভিযোগ উঠেছে তা আমলযোগ্য। যে ওসি শ্লীলতাহানির অভিযোগকে ‘সাজানো’ বলে মন্তব্য করতে পারেন, যিনি হত্যাচেষ্টাকে আত্মহত্যার চেষ্টা বলে সন্দেহ করেন, মামলার এজাহার বদলানোর অপচেষ্টা করেনÑ তার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক। একজন আসামি আত্মপক্ষ সমর্থন করতে গিয়ে বলতে পারে যে, মামলা সাজানো। কিন্তু দায়িত্বশীল পুলিশ কিভাবে আসামির ভাষায় কথা বলে সেটা আমাদের বোধগম্য নয়। হত্যাচেষ্টার মূল আসামির বিরুদ্ধে এলাকাবাসীকে কোন কর্মসূচি করতে না দিয়ে পুলিশ আসামির পক্ষই নিয়েছে। তাই এ অবস্থায় মামলার তদন্ত সঠিক পথে এগোবে না বলেই আমরা মনে করি। তদন্ত বা চার্জশিট তৈরিতে পুলিশ যদি দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে না পারে বা যদি আসামির পক্ষে ভূমিকা পালন করে তবে ভিকটিম বা তার পরিবার ন্যায়বিচার পাবে না। এ অবস্থায় ন্যায়বিচারের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট থানার ওসিসহ বিতর্কিত ভূমিকা রাখা পুলিশ সদস্যদের সরিয়ে দেয়াই উত্তম। মামলার তদন্ত যেন কোনভাবেই প্রভাবিত না হয় সেটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কঠোরভাবে নিশ্চিত করতে হবে।

সারা দেশের মানুষ নৃশংস এ অপরাধের বিচার চাচ্ছে সেই অপরাধের মামলা পুলিশ কেন অন্য খাতে প্রবাহিত করতে চাচ্ছে সেটা খতিয়ে দেখা দরকার। সরকার ন্যায়বিচার দেয়ার কথা বলছে, আর স্থানীয় পুলিশ করছে উল্টো কাজ। এ ধরনের পুলিশের জন্যই দেশে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হচ্ছে না। এ ধরনের পুলিশের ভরসাতেই অপরাধীরা উক্ত ছাত্রীকে পুড়িয়ে মারার দুঃসাহস পেয়েছে বলে অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়। শ্লীলতাহানির মামলার পরপরই পুলিশ যদি কঠোর আইনি পদক্ষেপ নিত তাহলে উক্ত ছাত্রীকে এমন করুণ পরিণতি বরণ করতে হতো না। আমরা বলতে চাই, দায়িত্বশীল পদে থেকে কোন পুলিশ কর্মকর্তা বা সদস্য আইনের ব্যত্যয় ঘটাচ্ছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখে এর কঠোর বিহিত করতে হবে।

দৈনিক সংবাদ : ১১ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

দেশের বাঁধগুলোর সক্ষমতা বাড়াতে হবে সংস্কারের লক্ষ্যে মনিটরিং করুন

ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশ অতিক্রম করে গেছে। ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড়।

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট প্রশ্নবিদ্ধ পুলিশের ভূমিকা

সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীর অভিযোগ ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের পছন্দের প্রতীকে ভোট দেয়ায় তার ওপর নির্যাতন হয়েছে

বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত করতে হবে

চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভাগ মানসম্মত বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে না পারায়

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

স্বাভাবিক পুঁজিবাজার চাই অনৈতিক কারসাজি দমন করুন

দেশের পুঁজিবাজারে এখনও কারসাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক সুকৌশলে নিয়ন্ত্রণ করছে এমন